প্রতিষ্ঠান পরিচিতি (Home)

১৯৬৯ সালে কলেজটি প্রতিষ্ঠিত হয়। বাংলাদেশ সেনাবাহিনীর একজন উর্ধ্বতন কর্মকর্তার নেতৃত্বে একাধিক সামরিক ও বেসামরিক কর্মকর্তার সমন্বয়ে গঠিত পরিচালনা পরিষদ কর্তৃক প্রতিষ্ঠানটি পরিচালিত হয়ে আসছে। পাঠদানের মান, অর্জিত ফলাফল ও নিয়ম-শৃংখলার বিবেচনায় এ কলেজটি দেশের অন্যতম শ্রেষ্ঠ শিক্ষা প্রতিষ্ঠান। বর্তমানে উচ্চ মাধ্যমিক পর্যায়ে বিজ্ঞান, মানবিক, ব্যবসায় শিক্ষা শাখার পাশাপাশি ডিগ্রী (পাস) সহ ১০ টি বিষয়ে অনার্স ও ৫ টি বিষয়ে মাস্টার্স কোর্স চালু রয়েছে। এ সকল শাখা ও বিভাগসমূহে প্রায় ৬০০০ জন শিক্ষার্থী অধ্যয়নের সুযোগ পাচ্ছে।
২০১৫ সালে কলেজটি সম্পূর্ণ সেনাবাহিনীর নিয়ন্ত্রণে আনা হয় যা একটি যুগান্তকারী পরিবর্তন। বর্তমানে কলেজটি সম্পূর্ণ পাবলিক কলেজে রূপান্তরিত হয়েছে, যার প্রধান পৃষ্ঠপোষক ৫৫ পদাতিক ডিভিশনের জিওসি। বর্তমানে নানামুখী অবকাঠামোগত উন্নয়ন কো-কারিকুলাম কার্যক্রম এবং উন্নত শৃংখলার পাশাপাশি লেখাপড়া ও কাঙ্খিত ফলাফল অর্জনে গ্রহণ করা হয়েছে যুগান্তকারী পদক্ষেপ। শিক্ষার্থীদের অসামান্য ফলাফল এবং অভিভাবকদের আস্থা অর্জনই আমাদের পথ চলার প্রেরণা।
বাংলাদেশে সেনাবাহিনী পরিচালিত ক্যান্টনমেন্ট কলেজগুলোর মধ্যে কোর্স কিংবা ছাত্রসংখ্যা সব ধরণের মানদন্ডেই সর্বশ্রেষ্ঠ ও সর্ববৃহৎ প্রতিষ্ঠান হচ্ছে যশোর ক্যান্টনমেন্ট কলেজ। যশোর সেনানিবাসের দক্ষিণ পূর্ব সীমান্তে, শহরের আরবপুর রেলক্রসিং ও ডিএইওএস সংলগ্ন অঞ্চলে অবস্থিত এই ক্যান্টনমেন্ট কলেজ যশোর দক্ষিণ বঙ্গের অন্যতম সেরা বিদ্যাপীঠ। জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয় এবং মাধ্যমিক ও উচ্চ মাধ্যমিক শিক্ষা বোর্ড যশোর এর অধীনে, পরিচালনা পরিষদের প্রত্যক্ষ তত্ত্বাবধানে কলেজের শিক্ষা কার্যক্রম পরিচালিত হয়।

Read More